২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ দুপুর ১:৪২

আমি পরিচ্ছন্ন রাজনীতিতে বিশ্বাসী – পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিবেদক:-
  • আপডেট সময়ঃ মঙ্গলবার, জুন ২০, ২০২৩,
  • 164 পঠিত

 

বিশেষ প্রতিবেদক

বরিশাল ৫ আসনের সংসদ সদস্য ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামিম বলেছেন, আমি পরিচ্ছন্ন রাজনীতিতে বিশ্বাসী। তাই আমি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাজনীতি করতে চাই। আমাকে নিয়ে কেউ কেউ কথা বললেও আমি কখনোই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কিছু বলিনা। কোনোরকম টেন্ডারবাজী বা চাঁদাবাজি আমি করিনা। যদি কেউ আমার নাম ভাঙিয়ে টেন্ডার বা চাঁদাবাজি করে, আপনারা সাথে সাথে আমাকে জানাবেন।
২০ জুন মঙ্গলবার নগরীর একটি কনভেনশন সেন্টারে জাতীয় ও আঞ্চলিক বিভিন্ন গনমাধ্যম প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এসময় বরিশাল মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদুল হক খান মামুন ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান মধু তার পাশে ছিলেন।
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, গত কয়েক বছরে বরিশাল মহানগরীর কাঙ্খিত উন্নয়ন হয়নি। নগরীর রাস্তাঘাট, পয়ঃনিস্কাশন ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে তেমন সুখবর ছিলনা। এমনকি নগরীর ৭টি খাল পুণঃ খননে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় থেকে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দের পরে দরপত্র আহবান করেও সে কাজ শুরু করা যায়নি। এক পর্যায়ে অর্থ ফেরত যাবার যোগাড় হলেও অনেক চেষ্টা করে তা আটকানো গেছে বলে জানান তিনি।
তিনি বলেন, লক্ষে পুনরায় দরপত্র আহবান করা হয়েছে। আগামী মাসের মঝামাঝি নাগাদ কার্যাদেশ দেয়া সম্ভব হবে বলেও জানান জাহিদ ফারুক। একইসাথে নগরীর ভঙ্গুর রাস্তাঘাটের জরুরী মেরামতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় থেকে ৪২ কোটি টাকার একটি থোক বরাদ্দ পাবার কথা জানিয়ে যত দ্রুত সম্ভব এ লক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহনের কথাও বলেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।
বরিশাল মহানগরীকে আদর্শ নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে একটি পরিপূর্ণ উন্নয়ন প্রকল্প প্রনয়ন করা হবে বলেও জানান সদর আসনের এমপি জাহিদ ফারুক। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বরিশাল সহ দক্ষিণাঞ্চলের নদী ভাঙন রোধে অনেকগুলো প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। পাশাপাশি বরিশাল নদী বন্দর সংলগ্ন চরবাড়িয়া, চরকাউয়া সহ বেশ কয়েকটি ভাঙন রোধ প্রকল্পের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এছাড়াও ৫১২ কোটি টাকার এজটি প্রকল্পের কাজ আগামী একমাসের মধ্যেই চরকাউয়া অংশে শুরু হবে জানিয়ে জাহিদ ফারুক বলেন, এ কাজটি যাতে টেকসই ও দৃষ্টিনন্দন হয়, সেজন্য প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বাস্তবয়নের উদ্যোগে নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
মত বিনিময় সভায় গণমাধ্যম প্রতিনিধিগন বরিশাল মহানগরীসহ দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভবনার কথা তুলে ধরেন। এসময় প্রশ্নের উত্তরে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বলেন, জলাবদ্ধতা বরিশাল নগরীর একটি প্রধান সমস্যা। এ সমস্যা সমাধানে ৭টি খাল সংস্কার করে পানি প্রবাহ নিশ্চিত করা হবে। আগামী মাসের প্রথমদিকে দরপত্র আহ্বান করে এক সপ্তাহের মধ্যে কাজ শুরু হবে। তবে এর সুফল এ বছর না পাওয়া গেলেও আগামী বছর নগরবাসী এর সুফল পাবেন বলে দাবি করেছেন বরিশাল সদর আসনের এমপি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল অব. জাহিদ ফারুক শামীম।
মতবিনিময় সভায় প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহকে সাথে নিয়ে বড় একটি প্রকল্প পাশ করানো হবে। ওই প্রকল্পের মাধ্যমে বরিশাল নগরীর পরিকল্পিত উন্নয়ন করা হবে। বাংলার ভেনিস খ্যাত বরিশালের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার অঙ্গিকার করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বরিশাল নগরী নষ্ট হয়েছিল। তা আমরা আর হতে দেবো না। নতুন আঙ্গিকে বরিশালকে সাজাতে চাই। বরিশাল নগরী ও মানুষকে সুন্দর করতে চাই।
বর্তমান মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লার প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, দীর্ঘদিন নগরী একজনের কাছে কুক্ষিগত ছিল। সেখান থেকে বের হয়ে নবনির্বাচিত মেয়রকে সাথে নিয়ে সকল ধরনের কর্মকান্ড পরিচালনার কথা জানান জাহিদ ফারুক এমপি ।।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo