১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:৪৮

বরিশালে এইচএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক

বার্তা ডেক্স:
  • আপডেট সময়ঃ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৭, ২০২৩,
  • 60 পঠিত

সারাদেশে আজ ১৭ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টা শুরু হয়েছে এইচএসসি, আলিম, এইচএসসি (বিএমটি/ভোকেশনাল) ২০২৩ পরীক্ষা। আজ বরিশালের ৩ টি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শওকত আলী, পুলিশ কমিশনার মেট্রোপলিটন পুলিশ মোঃ সাইফুল ইসলাম বিপিএম (বার) ও জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম ।

শুরুতে বরিশাল সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ ও সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মনদীপ ঘরাই, অধ্যক্ষ বরিশাল সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ প্রফেসর ড. এহতেসাম উল হক, অধ্যক্ষ বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ মোঃ আসাদুজ্জামান, অধ্যক্ষ সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ প্রফেসর মু. মোস্তফা কামাল, দায়িত্বরত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, সংশ্লিষ্ট শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। এসময় তারা বিভিন্ন পরীক্ষাকেন্দ্রের কক্ষ পরিদর্শন করেন। এবার বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২৯ হাজার ৬৯ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এদের মধ্যে ১৪ হাজার ৯’শ ৩১ জন ছাত্রী আর ১৪ হাজার ১’শ ৩৮ জন ছাত্র রয়েছে। পরীক্ষার্থীদের জন্য ৭১ টি কেন্দ্র রয়েছে এই শিক্ষা বোর্ডের অর্ধীনে।

এইচএসসি পরীক্ষার জন্য বিশেষ নির্দেশনা। কোনো পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে মোবাইল ফোন আনতে পারবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। পরীক্ষা শুরুর অন্তত ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের আসন গ্রহণ করতে হবে। প্রথমে বহু নির্বাচনী ও পরে সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। উভয় অংশের পরীক্ষার মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। প্রোগ্রামিং ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না। বিশেষ নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে- প্রশ্নপত্রে উল্লিখিত সময় অনুযায়ী পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার্থীগণ তাদের প্রবেশপত্র নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিকট হতে সংগ্রহ করবে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থী সরবরাহকৃত উত্তরপত্রে তার পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি ওএমআর ফরমে যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোন অবস্থাতেই মার্জিনের মধ্যে লেখা কিংবা অন্য কোন প্রয়োজনে উত্তরপত্র ভাঁজ করা যাবে না। নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, পরীক্ষার্থীকে তত্ত্বীয়, বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক অংশে (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) পৃথকভাবে পাস করতে হবে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থী কেবল রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও প্রবেশ পত্রে উল্লিখিত বিষয়/বিষয়সমূহের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। কোনো অবস্থাতেই অন্য বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না এবং কোনো পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নিজ কলেজ প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে না, পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo