২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ দুপুর ১:৪৫

বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ হবে নাকি সাম্প্রদায়িক দেশ হবে এই নির্বাচনের মাধ্যমে বোঝা যাবে -পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

বার্তা ডেক্স:
  • আপডেট সময়ঃ রবিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২৩,
  • 87 পঠিত

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাস্তবায়ন ঘটেছে। প্রত্যেক ধর্মের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করতে পারছেন।শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত এর পক্ষ থেকে বরিশাল মহানগর ও সদর উপজেলার মন্দিরসমূহে অনুদান প্রদানের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বরিশাল জেলা শাখার সহ-সভাপতি কর্নেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামীম এমপি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দুর্গাপূর্জা উৎসবমূখর ও সুষ্ঠু উদযাপনে ইতোমধ্যে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। বিভিন্ন সড়কের আলোকিতকরণ সহ বিভিন্ন সড়কে চলমান উন্নয়নকাজ পূজার পূর্বে শেষ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।এছাড়াও তিনি তার বক্তব্যে পূজা সুষ্ঠু উদযাপনে নারী পুরুষের আলাদা লাইন করা, নির্দিষ্ট স্থানে বর্জ্য ফেলা, ওয়ান টাইম প্লেট গ্লাস ড্রেনে না ফেলা, সড়কের কোন বৈদ্যতিক লাইন থেকে সরাসরি বিদ্যুৎ না নেওয়া, প্যান্ডেল বানানোর জন্য সিটির কোন সড়কে খোঁড়াখুড়ি না করার জন্য অনুরোধ করলে তা মেনে চলায় সকলের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।তিনি বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসব সুষ্ঠু ও উৎসবমূখর উদযাপনে আওয়ামীলীগ সরকার ই একমাত্র অসম্প্রদায়িক ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

দক্ষিনাঞ্চলের সবচেয়ে বড় চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। পূজা শেষে মন্দিরের জন্য অনুদান বিতরন অনুষ্ঠানে এ হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন সদর আসনের এমপি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীম।
রোববার দুপুরে নব নির্বাচিত সিটি মেয়র খোকন সেরনিয়াবাতের পক্ষ থেকে নগরী ও সদর উপজেলার মন্দিরে অনুদান বিতরন করা হয়। বরিশাল নগরীর রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনে এ বিতরন অনুষ্ঠানে অতিথি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীম এমপি বলেন, আমি নির্বাচনের সময় বলেছিলাম বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজকে একটি আধুনিক মেডিকেল কলেজে রুপান্তরিত করবো। কিন্তু আমার দুর্ভাগ্য সেটা আমি পারিনি। কেন পারিনি, সেটা আপনাদের জানা উচিত এবং সবাইকে বলা উচিত। নিয়মানুযায়ী সংসদীয় এলাকায় যে মেডিকেল কলেজ থাকে, সেটার সভাপতি হয় সেই আসনের এমপি। সেই অনুযায়ী আমার সভাপতি হওয়ার কথা কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তা হয়নি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমার ইচ্ছে ছিলো শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজকে আধুনিক মেডিকেল কলেজে রুপান্তর করার। আজ শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজের চেহারা পাল্টে দিতাম, এটা আমার স্বপ্ন ছিলো। কিন্তু আমি সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারিনি। আমার ইচ্ছা ছিলো বিভিন্ন বড় বড় ব্যবসায়ীদের এনে তাদের নামে ওয়ার্ডগুলো লিখে দিয়ে, তাদের কাছ থেকে অনুদান নিয়ে শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজকে আধুনিকে রুপান্তরিত করতে, কিন্তু আমরা পারিনি। কিন্তু আমি কথা দিতে পারি, আগামী সংসদ নির্বাচনে যদি নির্বাচিত হতে পারি প্রথমেই বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজের উন্নয়ন করবো। যা পুরো বিভাগের মধ্যে একটি সুন্দর ও দেশের মধ্যে মডেল হসপিটাল হিসেবে তৈরি করবো এটা আমার প্রতিজ্ঞা থাকলো।পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর এ বক্তব্যের সময় নব নির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত হাতি তালি দিয়ে সাধুবাদ জানিয়েছেন।
নির্বাচন প্রসঙ্গ নিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে যে নির্বাচন আসছে, এটা আমাদের বাংলাদেশের স্থিতির জন্য খুবই প্রয়োজনীয় ও জরুরী একটা নির্বাচন। এই নির্বাচনের মাধ্যমে বোঝা যাবে বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক দেশ হবে নাকি সাম্প্রদায়িক দেশ হবে। যদি আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসে তাহলে অসাম্প্রদায়িক দেশ হবে, আর অন্যরা আসলে সাম্প্রদায়িক দেশ হবে, এটা আপনাদের বুঝতে হবে।
শামীম এমপি বলেন, যারা শান্তিকামী মানুষ, যারা দেশের উন্নয়ন চায়, পরিবার-পরিজন নিয়ে দেশে শান্তিতে বসবাস করতে চায় তাদের জন্য একটি পরীক্ষা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই পরীক্ষায় উর্তীন্ন হতে হলে আমাদের সবাইকে একসাথে মিলে কাজ করতে হবে।
এ সময় তিনি বলেন, ২০১৮ সালে আপনারা আমাকে নির্বাচিত করেছেন। দুঃখের বিষয় আমি নির্বাচিত হওয়ার পর দুই বছর করোনা, আর এখন রাশিয়া ইউক্রেনের যুদ্ধ। তারপরও আমি চেষ্টা করেছি বরিশাল সদর উপজেলার উন্নয়ন করতে। কিন্তু আমার দুর্ভাগ্য বরিশাল সিটি করপোরেশনের উন্নয়ন করতে পারিনি। সাধারণত সিটি করপোরেশনের উন্নয়নের দায়িত্ব মেয়রের, সংসদ সদস্য সহযোগিতা করে। এক্ষেত্রে মেয়র মহোদয় সহযোগিতা না চাইলে সংসদ সদস্যরা সেভাবে কিছু করতে পারে না।
নবনির্বাচিত মেয়র খোকন সেরনিয়াবাত নির্বাচিত হয়ে শপথ নিয়েছেন জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাধারণভাবে এরপরে পূরাতন মেয়রের কোন কার্যক্রম থাকার কথা না, কিন্তু তারা এখন নতুন লোক নিচ্ছে এবং নতুন করে বেতন বাড়িয়ে দিচ্ছে।
নবনির্বাচিত মেয়রকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, খোকন সেরনিয়াবাত যাতে ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে না পারে, অর্থনৈতিক কষ্টের মধ্যে থাকে এরকম অনেক ধরণের ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এতে মুষ্টিমেয় কিছু লোক জড়িত। এরা হলো সমাজের বিকৃত লোক। যারা চাদাবাজি করে যারা সন্ত্রাসবাদি করে যারা মাদকের ব্যবসা করে এ ধরণের লোকরাই এসব চিন্তা করেন। আর মাত্র ১৬ দিন ধৈর্য্য করেন। খোকন সেরনিয়বাত মেয়রের চেয়ারে আসিন হোক, আমরা বরিশালকে সুন্দর শহরে রুপান্তরিত করবো। আপনারা বরিশালবাসী গর্ববোধ করতে পারবেন।
অনুষ্ঠানে বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য পংকজ দেবনাথ, আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য এ্যাড. বলরাম পোদ্দার, রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সভাপতি রাখাল চন্দ্র দে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে নগরীর ৪৫ টি মন্দিরে সাড়ে ৪ লাখ ও সদর উপজেলার ২৫ টি মন্দিরে ৭৫ হাজার টাকা অনুদান বিতরন করা হয়।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সমিতির সাবেক সভাপতি এ্যাডঃলষ্কর নুরুল হক, রামকৃষ্ণ মিশন মহারাজ,স্বামী বিজিত আত্তনা নন্দ,বরিশাল অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক সোহেল মারুফ, বরিশাল মহানগর আওয়ামী যুবলীগ এর যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব মাহমুদুল হক খান মামুন, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা কেবিএস আহমেদ কবির,
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এর নবনির্বাচিত অধিকাংশ ওয়ার্ড কাউন্সিলর।কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগ এর সদস্য ও বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম দেওয়ান, বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃজসিম উদ্দিন, বরিশাল বিএম কলেজ বাকসুর সাবেক ভিপি মোঃ মঈন তুষার, বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি জোবায়ের আব্দুল্লাহ জিন্নাহ, বরিশাল সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ ছাত্রলীগ এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃমাহিদুর রহমান মাহাদ সহ বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ এর সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo