১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সকাল ১০:০৪

৮ শ কোটি টাকা নিয়ে আগামীকাল দায়িত্ব গ্রহণ করবেন মেয়র খোকন সেরনিয়াবাত

আরিফ আহমেদ
  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, নভেম্বর ১৩, ২০২৩,
  • 46 পঠিত

 

আরিফ আহমেদ, বিশেষ প্রতিবেদক

প্রায় আটশত কোটি টাকা উন্নয়ন তহবিল হাতে নিয়ে আগামীকাল  (১৪ নভেম্বর) বরিশাল সিটি করপোরেশন (বিসিসি) এর দায়িত্ব গ্রহণ করতে যাচ্ছেন নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ (খোকন সেরনিয়াবাত)। বরিশাল নগরীজুড়ে চারিদিকে ইতোমধ্যে চলছে উৎসবের আমেজ। নবনির্বাচিত মেয়রকে বরণ করতে ৫৮ বর্গকিলোমিটার এলাকায় তাই সাজ সাজ রব। চারদিকে সাধারণ মানুষের মুখে একটাই শব্দ – নতুন মেয়র খায়ের এর অভিষেক। প্রায় একযুগ পর প্রয়াত মেয়র হীরণের মত একজন মেয়র পেতে যাচ্ছি আমরা। হয়তোবা তাঁর চেয়েও বেশি আপনজন হবেন আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ ওরফে খোকন সেরনিয়াবাত ।
এদিকে একান্ত সাক্ষাতে গতদিন- ফোন ধরতে না পারা এবং গত প্রায় চারমাস বরিশালের অনেক সাংগঠনিক নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে না পারার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত বললেন, গত চারমাস আমি ঢাকা বরিশাল ছুটে বেড়িয়েছি। ঢাকা থেকে ইঞ্জিনিয়ার এনে বরিশালের জন্য পরিকল্পিত ও টেকসই উন্নয়নে করণীয় পথ খুঁজে বেড়িয়েছি। সিটি করপোরেশনকে কীভাবে প্রাণবন্ত ও জনগণের জন্য কল্যাণকর করা য়ায়, সেই পথ খুঁজে বেড়িয়েছি। যে কারণে আপনাদের অনেকের ফোন রিসিভ সম্ভব হয়নি, অনেকের ব্যাক্তিগত ও সাংগঠনিক নিমন্ত্রণও রক্ষা করতে পারিনি বলে ক্ষমা চাইলেন নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত। তিনি বলেন, প্রতিটি মুহূর্ত আমি ব্যস্ত ছিলাম বরিশালবাসীকে একটি সুন্দর ও সুপরিকল্পিত নগরী উপহার দেয়ার পরিকল্পনা কাজে। আমি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী।
সত্যিই তাই। গত ১২ জুন বরিশালের মানুষ দলমত নির্বিশেষে আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ কে বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত করেন। নির্বাচনে জয় লাভের পর ৩ জুলাই খুলনা, গাজীপুরের মেয়রসহ শপথ বাক্য পাঠ করেন বরিশালের মেয়র আবুল খায়ের। এর পর পরই তাঁকে ছুটে বেড়াতে দেখা গেছে বরিশাল বাস টার্মিনালসহ নগরীর আনাচকানাচে।আমানতগঞ্জের বেলতলা ও রূপাতলীর নষ্ট হয়ে পরে থাকা ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট ঘুরে দেখেছেন তিনি। এসময় তার সাথে আশা প্রকৌশলীরা করণীয় নিয়ে ছবি তোলেন ও নোট লিখে রাখেন। নগরীর নতুন বাজারের মরকখোলার পোল, বাঁশের হাটখোলা সনাতন ধর্মালম্বী ভক্ত কলোনি, লাকুটিয়া সড়ক, জাইল্লা বাড়ি পোল, নাজির মহল্লা পোল, জেল খালসহ বিভিন্ন এলাকার রাস্তা সংস্কার ও প্রশস্তকরণসহ অত্র এলাকার খালগুলোর জলাবদ্ধতা নিরসন ও সৌন্দর্যবর্ধন কাজের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এসব এলাকা পায়ে হেঁটে পরিদর্শন করেন নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ (খোকন সেরনিয়াবাত)। এসময় ঢাকা থেকে আগত ইঞ্জিনিয়ার ছাড়াও তার সাথে ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
এই চারমাসে তিনি ঘুরে বেড়িয়েছেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের হাতেম আলী কলেজ চৌমাথা থেকে নবগ্রাম রোড রুইয়ার পোল, সোনা মিয়ার পোল, ভাঙার পোল পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকায়। এসময় রাস্তা টু লেন প্রশস্তকরণসহ রাস্তার দুই ধারের খালের জলাবদ্ধতা নিরসন ও সৌন্দর্যবর্ধন কাজের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বিস্তীর্ণ এলাকার ম্যাপ তৈরির নির্দেশনা দেন তিনি। ইঞ্জিনিয়ার বা প্রকৌশলী নিয়ে ঘুরে দেখেছেন রূপাতলী ও নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল দুটিও। ছবি তুলে নিয়েছেন প্রকৌশলীগণ। ফুটওভার ব্রিজের প্রয়োজনীয়তা এবং নগরীর যানজট নিরসনের বিষয়ে বৈঠক করেছেন বরিশালের ট্রাফিক বিভাগের সাথে। করণীয় বিষয় সম্পর্কে ট্রাফিক বিভাগের পরামর্শ নিয়েছেন বলে জানান ট্রাফিকের উপপুলিশ কমিশনার তানভীর আরাফাত।
একইভাবে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে সাতটি খালকে পুনরুজ্জীবিত করতে বৈঠক করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের সাথেও। প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ১৩ নভেম্বর বেলা তিনটায় বরিশাল সদর উপজেলার চাঁদপুরা ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করছিলেন। এসময় একান্ত সাক্ষাতে তিনি বরিশালের উন্নয়ন নিয়ে নবনির্বাচিত মেয়র আবুল খায়ের এর সাথে পরপর কয়েকটি বৈঠক করেছেন জানিয়ে বলেন, আমি ও মেয়র আবুল খায়ের যৌথভাবে বরিশালের উন্নয়নে করণীয় সবকিছু করবো।বরিশালবাসীর সুখ দুঃখের সাথী হবো আমরা দুজনেই।
তিনি আরো বলেন, বরিশালবাসীর মুখে এতোদিন শুধু প্রয়াত মেয়র হীরণ এর প্রশংসা শুনেছি। আশাকরি, এবার তারা এমন একজন মেয়র পেয়েছেন, যিনি বরিশালবাসীর জন্য আগামীতে জনপ্রিয়তায় মেয়র হীরনকে ছাড়িয়ে যাবেন বলে আমার বিশ্বাস।
আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ তখন তার দায়িত্ব পালনে ব্যস্ত। তিনি ছুটে বেড়াচ্ছেন সড়ক ও সেতু বিভাগসহ পানি সম্পদ ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তরে। যারই ফলশ্রুতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশালবাসীকে সড়ক নির্মাণ, সংস্কার এবং জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য নগর উন্নয়নে ৭৯৭.০৭ কোটি টাকা একনেক বৈঠকে পাশ করে দেন। যা নিয়ে গত ১২ নভেম্বর নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর নিকট বরিশালবাসীর পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানালেন মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত। তিনি প্রায় আটশো কোটি টাকা হাতে নিয়ে আজ বরিশাল সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo