১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ১০:৪৪

প্রার্থীতা বাতিলের শংকায় দু-দু বার আঃলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত সাদিক আব্দুল্লাহ ..!

বার্তা ডেক্স:
  • আপডেট সময়ঃ বুধবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২৩,
  • 415 পঠিত

বরিশাল-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সদ্য সাবেক সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর প্রার্থীতা বাতিল চেয়ে নির্বাচন কমিশনে আপীল করা হয়েছে।

বুধবার এ আবেদন করেছেন বরিশাল-৫ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীমের সমর্থনকারী এ্যাড. কেবিএস আহমেদ কবীর।

বরিশাল বিভাগের আপীল গ্রহনের দায়িত্বরত কর্মকর্তা নির্বাচন কমিশনের উপ-পরিচালক আব্দুর রশিদ মিয়া জানিয়েছেন, বরিশাল-৫ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর মনোনয়ন বাতিলের দাবি জানিয়ে আবেদন করেছে। এছাড়াও বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন আসনে বাতিল হওয়া ৭ জন প্রার্থীতা বহালের আপীল করেছেন।

বরিশাল-৫ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। সাবেক মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর পরিবর্তে সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয় পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তার ছোট চাচা আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত। সিটি নির্বাচনে দলীয় ব্যর্থ হয়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। কিন্তু বরিশাল-৫ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীম এমপি। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন তিনি।

বরিশাল-৫ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীমের অনুসারী মহানগরের সাবেক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ আমেরিকার নাগরিক ও ভোটার। এছাড়াও রিটানিং কর্মকর্তা কাছে দেয়া হলফনামায় সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন।

তিনি জানান, সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর আমেরিকান নাগরিক। তার ভোটার আইডি কার্ডে নাম সেরনিয়াবাত এস আব্দুল্লাহ। তিনি নিউইয়র্ক সিটির ভোটার। তার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার ৪১০৯০৪০০৭। এছাড়া তার স্ত্রী লিপি আব্দুল্লাহ সহ সন্তানরাও আমেরিকান নাগরিক। এছাড়া আমেরিকায় নিউইয়র্ক শহরের কুইন ভিলেজে লিপি আব্দুল্লাহ নামে বাড়ি আছে। এসব তথ্য প্রমানসহ প্রার্থীতা বাতিলের জন্য আপীল করা হয়েছে।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় মৌখিকভাবে হলফনামায় সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর স্ত্রী লিপি আব্দুল্লাহর বাড়ী থাকার তথ্য গোপন করার অভিযোগ করা হয়। কিন্তু ওই অভিযোগ লিখিতভাবে না পেয়ে গত ৩ ডিসেম্বর রাতে বরিশালের রিটানিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করেন।

আবেদনকারী এ্যাড. কেবিএস আহমেদ কবীর বলেন, হলফনামায় অসত্য তথ্য দেওয়ার পরও রিটার্নিং অফিসার স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদিক আব্দুল্লাহর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছে। আমরা বিষয়টি তখন নজর এনেছিলাম। সেখানে বিষয়টি আমলে না নেওয়ায় ইসিতে আপিল করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন আপিল শুনানি করে ‘সঠিক রায়’ দেবেন বলে আশা করেন তিনি।

তবে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহামুদ বাবু বলেন, এসব।
বরিশাল-৫ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কর্নেল অব. জাহিদ ফারুক শামীমের দেউলিয়াপনা। এসব করে কোন লাভ নেই। জনগণ যাকে চাইবে সেই নির্বাচিত হবে। আওয়ামী লীগের সভাপতির নির্দেশনা অনুযায়ী নির্বাচনকে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক করতে আমরা নির্বাচনে এসেছি। বরিশালের মানুষ সাদিক আব্দুল্লাহর পাশে আছে। যার প্রমান মিলবে আগামী ৭ জানুয়ারি।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo