২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ দুপুর ২:৪৪

আমি আমার স্ত্রীর লাশ নিয়ে রাজনীতি করতে চাই না-নির্বাচনী জনসভায় জাহিদ ফারুক শামীম

রিপোর্টার নামঃ
  • আপডেট সময়ঃ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২১, ২০২৩,
  • 308 পঠিত

এম.এস.আই লিমনঃ

আমি আমার স্ত্রীর লাশ নিয়ে রাজনীতি করতে চাই না। আগামীকাল মৃতদেহ দেশে আসলে জানাযা শেষে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে। আপনারা সকলে আমার স্ত্রীর জন্য দোয়া করবেন ২১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল ৩ টায় বরিশাল সদর উপজেলার সাহেবের হাট এলাকায় অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) জাহিদ ফারুক শামীম একথা বলেন।

জনসভায় তিনি বলেন, আমি বক্তৃতা দেয়ার পর্যায় নেই। তারপরেও এসেছি। কারন পূর্বে দুইবার এ জনসভা বাতিল করা হয়েছে। আজ বাতিল করা হলে আপনারা ভুল বুঝতেন।পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন ভোর রাত ৩ টা ২৪ মিনিটে ভারতের চেন্নাইতে আমার স্ত্রী ইন্তেকাল করেছেন। সেখান থেকে মরদেহ আনার চেষ্টা চলছে। আমার ছেলে সেখানে রয়েছে। এত কষ্টের মাঝেও আমি আমার দায়িত্ব সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। আপনাদের সাথে যদি কথা না বলি, তাহলে প্রধানমন্ত্রী আমার উপর যে দায়িত্ব দিয়েছেন, তা সঠিকভাবে পালন করেনি।
চাঁদপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এইচএম জাহিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সদর আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত এ প্রাথী বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমার উপর আস্থা রেখে মনোনয়ন দিয়েছেন। এরআগেও মনোনয়ন দিয়েছেন। এমপি হয়েছি, মন্ত্রী করেছেন।
কর্নেল অব. শামীম বলেন, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়ে দেশের এ প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত ছুটে বেরিয়েছি। নদীর ভাঙ্গনে দুর্দশাগ্রস্থ মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করেছি।
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি বলেছিলাম ভোলা থেকে গ্যাস আনবো। আমি আনতে পারি নাই বিভিন্ন টেকনিক্যাল কারনে। আপনারা জেনে খুশি হবেন ভোলা থেকে গ্যাসের পাইপ লাইন স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ৬ থেকে ৮ মাসের মধ্যে বরিশালে গ্যাস আসবে। বরিশালে গ্যাস এলে শিল্প কারখানা গড়ে উঠবে। আপনাদের ছেলে-মেয়েরা সেখানে চাকুরি পাবে। আপনারা জানেন না বরিশাল থেকে ভোলা পর্যন্ত বিশাল এক রাস্তা হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারা জেনে খুশি হবেন সদর উপজেলার লামছরিতে দুইশ একর জমি অধিগ্রহন করা হয়েছে। সেখানে শিল্প কারখানা গড়ে উঠবে। সেখানে একশ থেকে দেড়শ শিল্প কারখানা গড়ে উঠে, সেখানে চাকরি আপনার ছেলে মেয়েরাই পাবে। আপনার যদি অন্য কাউকে নির্বাচন করে এমপি বানান, তাহলে এগুলো সব থমকে যাবে।
আগামী ২৯ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী বরিশাল আসবেন জানিয়ে বলেন, তিনি কেন বরিশালকে সিলেক্ট করেছেন। আমি মনে করি, আমার উপর তার আস্থা রয়েছে। আস্থা আছে বলেই তিনি বরিশালে নির্বাচনী প্রচারনার সভা করবেন। আমি চাই বঙ্গবন্ধু উদ্যানে লোকে লোকারন্যে হোক। প্রধানমন্ত্রীর জনসভা জনসমুদ্রে পরিনত করতে চাই। বাংলাদেশের যদি উন্নয়ন চান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই।
জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আফজালুল করিম, এ্যাড. কেবিএস আহম্মেদ কবীর, এ্যাড. আনিসউদ্দীন আহমেদ শহীদ, টুঙ্গীবাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাদিরা রহমান। আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা এ্যাড. বলরাম পোদ্দার, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহমুদুল হক খান মামুন।

সংবাদটি শেয়ার করুন ...

এই বিভাগের আরো সংবাদ...
© All rights reserved © ২০২৩ স্মার্ট বরিশাল
EngineerBD-Jowfhowo